বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সাক্ষ্য গ্রহণ শুরুর আগে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ফরিদুল আলম প্রথম আলোকে জানান, চতুর্থ দফার প্রথম দিনে ছেনুয়ারাসহ মোট পাঁচজন সাক্ষী আদালতে হাজির হয়েছেন। মামলার অন্য সাক্ষীরা হলেন সাইফুল আফসার প্রকাশ আব্বুইয়া, অলি আহমদ, হামজালাল ও মো. আলী আকবর। তাঁদের সবার বাড়ি টেকনাফ উপজেলায়। আগামীকাল বুধবারও সাক্ষ্য গ্রহণ চলবে। এর আগের তিন দফায় ১৪ জনের সাক্ষ্য ও আসামিপক্ষের আইনজীবীদের জেরা সম্পন্ন করা হয়েছে।

আজ সকাল সাড়ে নয়টার দিকে বরখাস্ত ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, পরিদর্শক লিয়াকত আলীসহ ১৫ জন আসামিকে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে জেলা কারাগার থেকে প্রিজন ভ্যানে করে আদালত প্রাঙ্গণে আনা হয়। এরপর আসামিদের আদালতে নেওয়া হয়।

আদালত সূত্র জানায়, ২০২০ সালের ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর তল্লাশিচৌকিতে মেজর সিনহা নিহত হন। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে তিনটি (টেকনাফে দুটি, রামুতে একটি) মামলা করে। ঘটনার পর গত ৫ আগস্ট কক্সবাজার আদালতে প্রদীপ কুমার দাশ, লিয়াকত আলীসহ ৯ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন মেজর সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন