default-image

সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সহসম্পাদক এনামুল হক হত্যা মামলার প্রধান আসামি হিসেবে সংগঠনের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক শিহাব আহমেদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকালে জেলার উল্লাপাড়া হাটিকুমরু গোল চত্বর এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।
এনামুল হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) বদরুদ্দোজা জিমেল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। শিহাব পৌর শহরের দিয়ার ধানগড়া মহল্লার শামীম আহমেদের ছেলে। এনামুল হত্যার পর দুই মাসের বেশি সময় ধরে পলাতক ছিলেন শিহাব। এর আগে মঙ্গলবার (০১ সেপ্টেম্বর) মামলার দ্বিতীয় আসামি জেলা ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক আল-আমিনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এসআই বদরুদ্দোজা জিমেল জানান, শুক্রবার সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হাটিকুমরুল গোল চত্বর এলাকায় অভিযান চালিয়ে জিহাদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতের মাধ্যমে তাঁকে কারাগারে পাঠানো হবে।

গত ২৬ জুন আওয়ামী লীগের নেতা মোহাম্মদ নাসিমের স্মরণে দোয়া মাহফিলে যোগ দিতে যাওয়ার পথে পৌর শহরের বাজার স্টেশন এলাকায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হন জেলা ছাত্রলীগের সহসম্পাদক ও কামারখন্দের হাজী কোরপ আলী ডিগ্রি কলেজ শাখার সভাপতি এনামুল হক। ঢাকার একটি হাসপাতালে ৯ দিন লাইফ সাপোর্টে থাকার পর ৫ জুলাই তাঁর মৃত্যু হয়।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় এনামুলের ভাই মো. রুবেল বাদী হয়ে প্রধান আসামি শিহাব আহমেদসহ ছাত্রলীগের পাঁচ নেতা-কর্মীর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা চার–পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। ২৮ জুন ছাত্রলীগের দুই সাংগঠনিক সম্পাদক শিহাব আহমেদ ও আল-আমিনকে বহিষ্কার করে কেন্দ্রীয় কমিটি। ১৬ জুলাই মামলাটির তদন্তের দায়িত্বভার জেলা গোয়েন্দা পুলিশকে দেওয়া হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন