বিজ্ঞাপন

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের প্রথম দিকে গোয়াইনাটের বঙ্গবীর এলাকার কুরিখাল গ্রামের মস্তফা মিয়ার পরিবারের সঙ্গে নিহত কামাল উদ্দিনের পরিবারের জমি নিয়ে বিরোধ হয়। এ নিয়ে জানুয়ারি মাসে তাঁদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনা ঘটে। সে সময় মস্তফা মিয়ার পক্ষের দুলাল আহমদ নামের এক ব্যক্তি ছুরির আঘাতে আহত হন।

এ ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় কামাল উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। ১৫ দিন আগে তিনি জামিনে ছাড়া পান। গতকাল কামাল উদ্দিন বঙ্গবীর এলাকা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে প্রতিপক্ষের লোকজন তাঁর ওপর হামলা চালান। খবর পেয়ে গোয়াইনঘাট থানা–পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে এ ঘটনায় নিহতের ভাই আবদুল হামিদ বাদী হয়ে ১৯ জনের নাম উল্লেখ করে গোয়াইনঘাট থানায় মামলা করেছেন। মামলায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সিলেটের গোয়াইনঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল আহাদ বলেন, ঈদুল ফিতরের দিন সন্ধ্যায় পূর্ববিরোধের জেরে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে কামাল উদ্দিন নামের এক বৃদ্ধ গুরুতর আহত হলে তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন