বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

র‍্যাব-৯ সূত্র জানায়, ৯ জুলাই বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে একটি নম্বরবিহীন মোটরসাইকেলে চড়ে যাচ্ছিলেন ফয়ছল কাদির (৪০)। চালকসহ তিনজন ছিলেন মোটরসাইকেলে। কারও মাথায় হেলমেট ছিল না। অস্থায়ী নিরাপত্তাচৌকিতে কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ মোটরসাইকেলটি থামিয়ে কাগজপত্র দেখতে চাইলে তিনি সাংবাদিক পরিচয়ে সেখান থেকে ফেসবুকে ‘লাইভ’ শুরু করেন। হয়রানির অভিযোগ তুলে প্রায় আধা ঘণ্টার লাইভে তিনি ট্রাফিক পুলিশকে ভর্ৎসনা করেন। ঘটনাটির ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে দুই দিন পর ১১ জুলাই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে শাহপরান থানায় মামলা করেন সিলেট মহানগর পুলিশের ট্রাফিক সার্জেন্ট মো. নুরুল আফসার ভূঁইয়া। এই মামলার পর গা ঢাকা দিয়েছিলেন ফয়ছল কাদির।

ফয়ছল কাদির ফেসবুকের যে আইডি থেকে ঘটনাটির লাইভ দিয়েছিলেন, সেটির নাম ‘পিকে টিভি’ (পৃথিবীর কথা)। ফেসবুকভিত্তিক পেজটির তিনিই পরিচালক। আর ‘পৃথিবীর কথা’ নামের অনলাইন পোর্টালে প্রকাশক হিসেবে তাঁর নাম রয়েছে বলে র‍্যাব জানিয়েছে।

মামলার পরের দিন সোমবার মুঠোফোনে জানতে চাইলে ফয়ছল কাদির প্রথম আলোকে বলেছিলেন, তাঁর ওই লাইভ করা ভুল হয়েছে। ঘটনার দিন সন্ধ্যা থেকে পরের দিন সন্ধ্যা পর্যন্ত এটি সম্প্রচার হওয়ার পর তিনি ফেসবুক থেকে অপসারণ করেছিলেন। ভিডিওটি অল্প সময়ে বিভিন্নভাবে ছড়িয়ে পড়ায় তিনি বিব্রত। এ জন্য ‘পিকে টিভি’ থেকে আরেকটি ‘লাইভ’ দিয়ে ঘটনার জন্য মাফ চেয়েছিলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন