বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সিন্ডিকেট সভা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ ও প্রকাশনা দপ্তর জানায়, অনার্স ফাইনাল ইয়ার, এমএস ও পিএইচডির শিক্ষার্থীরা দুই ডোজ টিকা নেওয়ার পর ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে হলে প্রবেশ করতে পারবেন। অন্যান্য বর্ষের শিক্ষার্থীরা প্রথম ডোজ টিকা নিলেই ২১ অক্টোবর থেকে হলে প্রবেশ করতে পারবেন। আবাসিক হলে ওঠার আগে অবশ্যই টিকা গ্রহণের সনদ বিশ্ববিদ্যালয়ে জমা দিতে হবে। ১ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে পাঠদান শুরু, চলমান অনলাইন পরীক্ষাগুলো যথারীতি চালু রাখা এবং নির্ধারিত রুটিন অনুযায়ী পরীক্ষা শেষ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতিতে সারা দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়। প্রায় দেড় বছর পর সিন্ডিকেট সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বিশ্ববিদ্যালয় খোলার সিদ্ধান্ত হলো।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. বদরুল ইসলাম শোয়েব প্রথম আলোকে বলেন, করোনা মহামারির সময়ও সিকৃবির অনলাইন ক্লাস অব্যাহত ছিল। প্রশাসনিক কাজও থেমে ছিল না। স্বাস্থ্যবিধি মেনে কর্মকর্তারা প্রশাসনিক কার্যক্রম গতিশীল রাখেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের যেসব শিক্ষার্থী এখনো টিকা গ্রহণ করেননি, সিন্ডিকেট সভা থেকে কর্তৃপক্ষ তাঁদের দ্রুত টিকা গ্রহণ করতে নির্দেশ দিয়েছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন