বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি পাওয়া নেতারা ইউপি নির্বাচনে আরিফুল আলমের পক্ষে কাজ করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এদিকে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় নির্বাচনের এক দিন আগে আরিফুল আলমকেও দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেয় উপজেলা আওয়ামী লীগ।

মো. শাহজাহান বলেন, নির্বাচনে দলের মনোনীত নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে গিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে কাজ করায় সংগঠনের স্বার্থবিরোধী কাজ হয়েছে। দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের কারণে আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের ১২ নেতাকে সাংগঠনিক পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

অব্যাহতি পাওয়া আওয়ামী লীগের নেতার হলেন বাঁশবাড়িয়া ইউপির ১ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি মো. কামরুল ইসলাম, ২ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন, ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাব উদ্দিন, ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক মো. এসকান্দর ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি মোহাম্মদ আলী।

এদিকে যুবলীগ থেকে অব্যাহতিপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন ১ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি মো. ইয়াসিন, ২ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি মো. কামাল উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক মো. কামাল উদ্দিন, ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি মোহাম্মদ রাসেল ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আবু তাহের।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, ভোট গ্রহণ চলাকালে একটি কেন্দ্রে জোরপূর্বক সিল মারা ও অপর একটি কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলার কারণে ওই দুই ওয়ার্ডে নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন। ফলে ওই দুই ওয়ার্ডের নতুনভাবে নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত ফলাফল স্থগিত রয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন