বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দুর্ঘটনার পর সীতাকুণ্ড ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা তাঁর লাশ উদ্ধার করেন। পরে বার আউলিয়া হাইওয়ে থানা–পুলিশ দুর্ঘটনাকবলিত গাড়িটি উদ্ধার করে। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে নিহত ব্যক্তির বন্ধু মো. শামীম ঘটনাস্থলে এসে নুরুলের লাশ শনাক্ত করেন।

মো. শামীম প্রথম আলোকে বলেন, নুরুল ইসলাম কুমিল্লায় যাওয়ার জন্য গতকাল তাঁর কাছে গাড়ি চেয়েছিলেন। কিন্তু যান্ত্রিক ত্রুটি থাকায় শামীম তাঁর গাড়িটি দেননি। পরে নুরুল নিজ গাড়ি নিয়ে ফজরের নামাজ শেষে কুমিল্লার উদ্দেশে রওনা দেন।

বার আউলিয়া হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রুহুল আমীন জানান, ব্যবসায়ী নুরুল ইসলাম ব্যক্তিগত গাড়ি চালিয়ে চট্টগ্রাম নগর থেকে কুমিল্লায় গরু কিনতে যাচ্ছিলেন। গাড়িটি সীতাকুণ্ডের সোনালী কটন মিল এলাকায় পৌঁছালে সড়ক থেকে ছিটকে খাদে পড়ে যায়। বৃষ্টির কারণে রাস্তা পিচ্ছিল থাকায় গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারাতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

এসআই রুহুল আমীন বলেন, নিহত ব্যক্তির পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ তাঁদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন