কুলঞ্জ ইউপির চেয়ারম্যান একরার হোসেন বলেন, গতকাল বিকেলে ধীত গ্রামের কৃষকেরা গ্রামের পাশের হাওরে ধান কাটছিলেন। এ সময় বজ্রসহ বৃষ্টি শুরু হলে কৃষকেরা হাওর থেকে বাড়ি ফিরতে শুরু করেন। তখন পথে হাওরেই আকস্মিক বজ্রপাতে সাতজন আহত হন। গুরুতর আহত রবীন্দ্র দাস ও টিপু দাসকে পাশের হবিগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সাইফুল আলম বলেন, তাঁরা হাওরে বজ্রপাতে দুই কৃষকের মৃত্যুর বিষয়টি শুনেছেন। এ বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন