default-image

সুন্দরবনে নদীর চর থেকে একটি বেঙ্গল টাইগারের মরদেহ উদ্ধার করেছে বন বিভাগ। গতকাল শুক্রবার রাতে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের ভোলা নদের ধুনচেবাড়িয়ার চর এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। আজ শনিবার সকাল ১০টার দিকে প্রাণিসম্পদ বিভাগ ময়নাতদন্তের জন্য এর শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ সংগ্রহ করেছে।

বন বিভাগ বলছে, এটি বাঘিনী। বাঘিনীটি পূর্ণবয়স্ক ছিল। বয়স ১৪ থেকে ১৫ বছর হবে। বাঘিনীর মৃত্যুর কারণ জানতে বিভিন্ন নমুনা ঢাকার ফরেনসিক বিভাগে পাঠানো হচ্ছে। পরে বাঘিনীর মৃতদেহ শরণখোলা রেঞ্জ অফিসের পাশে মাটিচাপা দেওয়া হয়।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক জয়নাল আবেদিন বলেন, গতকাল সন্ধ্যার দিকে বন বিভাগের কর্মীরা নিয়মিত টহলের সময় একটি বাঘিনীর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন। রাত ১০টার দিকে তাঁরা সেটি উদ্ধার করে শরণখোলা রেঞ্জের অফিসে নিয়ে যান। বার্ধক্যের কারণে এর স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে তাঁরা ধারণা করছেন।

বিজ্ঞাপন

এই কর্মকর্তা বলেন, বাঘটির দৈর্ঘ্য সাত ফুট, উচ্চতা তিন ফুট দুই ইঞ্চি ও চওড়ায় তিন ফুট ছয় ইঞ্চি। এর আগেও একটি বাঘের মৃত্যু হয়েছিল। তখন ফরেনসিকে পাঠানো হলে তাঁরা জানান, বয়সের কারণে স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে।

মোরেলগঞ্জ উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা জি এম আবদুল কুদ্দুস বলেন, ‘ধারণা করছি সাত থেকে আট দিন আগে বাঘটি মারা গেছে। শরীরের অধিকাংশ অঙ্গপ্রত্যঙ্গ পচে যাওয়ায় ময়নাতদন্তের জন্য সব সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি। মৃত্যুর কারণ জানতে যে ধরনের নমুনা প্রয়োজন হয়, তা সংগ্রহ করে বাঘটি মাটিচাপা দেওয়া হয়েছে। পরীক্ষায় প্রাণীটির মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।’

এর আগে ২০১৯ সালের ২০ আগস্ট সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের ছাপড়াখালীর বন থেকে একটি মৃত বাঘ এবং ২০২০ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি একই রেঞ্জের কোকিলমনি টহল ফাঁড়ি-সংলগ্ন কবরখালী খালের চর থেকে আরেকটি মৃত বাঘ উদ্ধার করে বন বিভাগ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন