বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নগরের শেখ মুজিব সড়কের ওপর এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ করছে সিডিএ। বর্তমানে সড়ক ও দুই পাশের নালা সিডিএর আওতাভুক্ত বলে দাবি করে আসছে সিটি করপোরেশন। নালায় পড়ে ছাত্রীর মৃত্যুর পর এ ঘটনার জন্য সিডিএকে দায়ী করে সিটি করপোরেশন। তবে সিডিএর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দুর্ঘটনাস্থল তাদের আওতাভুক্ত নয়। এটি সিটি করপোরেশনের নালা।

সিটি করপোরেশন ও সিডিএ সূত্র জানায়, নালার মালিকানা নিয়ে পাল্টাপাল্টি বিরোধ থাকলেও বৃহস্পতিবার সেখানে নিরাপত্তাবেষ্টনী দেওয়ার উদ্যোগ নেয় সিটি করপোরেশন। পরে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে সিডিএর প্রকৌশলীদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। এরপর নালার পাশে নিরাপত্তাবেষ্টনী নির্মাণের সিদ্ধান্ত হয়।
সিডিএর কোনো প্রকৌশলী এ বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ঊর্ধ্বতন প্রকৌশলী জানান, সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে নালা নির্মাণ করা হয়েছে।

সিটি করপোরেশনের নির্বাহী প্রকৌশলী বিপ্লব দাশ প্রথম আলোকে বলেন, পথচারীদের চলাচলের সুবিধার্থে উন্মুক্ত নালাটির পাশে স্থায়ী নিরাপত্তাবেষ্টনীর উদ্যোগ নেওয়া হয়। দুর্ঘটনার পরদিন বাঁশ ও কাঠ দিয়ে অস্থায়ী বেষ্টনী দেওয়া হয়েছিল। আর স্থায়ী বেষ্টনীর বিষয়ে সিডিএকে অনুরোধ করলে তারা ইতিবাচকভাবে সাড়া দিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে তা নির্মাণ করে দেয়। অবশ্য সিডিএ না করলে নগরবাসীর স্বার্থে সিটি করপোরেশন তা করে দিত।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন