default-image

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলায় জমিতে সেচের পানি না দেওয়ায় গভীর নলকূপ কমিটির ব্যবস্থাপককে মারধর করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নিহত ব্যবস্থাপকের স্ত্রী আজ বুধবার ঈশ্বরগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেছেন। পাঁচজনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা দু-তিনজনকে আসামি করে মামলাটি হয়েছে।

নিহত ওই ব্যক্তির নাম আবুল হোসেন (৬০)। তিনি ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার তারুন্দিয়া গ্রামের গভীর নলকূপ কমিটির ব্যবস্থাপক ছিলেন।

মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বোরো মৌসুমে সেচের পানির মূল্য পরিশোধ না করায় তারুন্দিয়া গ্রামের মো. নুর উদ্দিনের জমিতে চলতি বোরো মৌসুমে সেচের পানি দেওয়া হয়নি। গতকাল মঙ্গলবার সকালে নুর উদ্দিনের পক্ষের লোকজন জমিতে পানি নেওয়ার জন্য জোর করে সেচের নালা খুলে দেন। তখন নলকূপ ব্যবস্থাপক আবুল হোসেন সেচ পাম্প বন্ধ করার চেষ্টা করলে নুর উদ্দিনের পক্ষের লোকজন তাঁকে ধাক্কা মেরে নালায় ফেলে মারধর করেন। গুরুতর আহত অবস্থায় আবুল হোসেনকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার হলে দুপুরে তিনি মারা যান।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল কাদের মিয়া বলেন, ঘটনার পর অভিযুক্ত ব্যক্তিরা এলাকা থেকে পালিয়ে গেছেন। তাঁদের গ্রেপ্তারের জন্য চেষ্টা চলছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন