বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মারা যাওয়া শিশুর নাম মোহাম্মদ হুসাইন (১১)। সে আলমডাঙ্গার কুমারী ইউনিয়নের কামালপুর গ্রামের ফারুক হোসেনের ছেলে। ঘটনার পর আলমডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থল থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, মোহাম্মদ হুসাইন ও তার দুই বন্ধু সন্ধ্যার দিকে ওই সেতুতে যায়। চলন্ত ট্রেনের সঙ্গে সেলফি ওঠানোর জন্য অপেক্ষা করতে থাকে তারা। একপর্যায়ে খুলনা থেকে ঢাকাগামী ঈদ স্পেশাল ট্রেন লালব্রিজে উঠলে মোহাম্মদ হুসাইনের দুই বন্ধু পানিতে ঝাঁপ দিয়ে আত্মরক্ষা করে। কিন্তু হাতে মুঠোফোন থাকায় মোহাম্মদ হুসাইন কী করবে ভাবতে ভাবতেই চলন্ত ট্রেন এসে ধাক্কা দেয়। ট্রেনের ধাক্কায় খালের পানিতে পড়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ জানায়, যেহেতু ঘটনাস্থল রেলওয়ে পুলিশের আওতায়। তাই লাশটি উদ্ধার করে পোড়াদহ রেলওয়ে থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন