default-image

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলায় কুকুরকে বাঁচাতে গিয়ে সড়কের পাশে ছিটকে পড়ে প্রাণ গেল শাহ নেওয়াজ (২৭) নামে মোটরসাইকেলের একজন আরোহীর। গতকাল রোববার সকালে সোনাগাজী-মুহুরী প্রকল্প সড়কের বাদামতলী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

শাহ নেওয়াজ পেশায় এনজিও কর্মচারী ছিলেন। তিনি নোয়াখালীর সুধারাম থানাধীন সৈয়দপুর এলাকার ইমাম উদ্দিনের ছেলে।

সোনাগাজী মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. ইয়াকুব আহত হওয়া মোটরসাইকেলের আরোহী ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে প্রথম আলোকে বলেন, শাহ নেওয়াজ চট্টগ্রামের কুমিরা এলাকায় একটি এনজিওতে কাজ করেন। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে অফিস শেষ করে তিনি মোটরসাইকেলে করে মুহুরী প্রকল্প সড়ক হয়ে সোনাগাজী পৌর শহর দিয়ে নোয়াখালী এলাকার বাড়িতে যান। গতকাল সকালে পুনরায় একই পথ দিয়ে কর্মস্থলে যাওয়ার উদ্দেশ্যে মোটরসাইকেলে করে বাড়ি থেকে বের হন। কিন্তু সোনাগাজী-মুহুরী প্রকল্প সড়কের বাদামতলী এলাকায় পৌঁছামাত্র কয়েকটি কুকুর সড়কের ওপর দিয়ে দৌড় দেয়। এ সময় তিনি কুকুরগুলোকে বাঁচাতে গিয়ে মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে ছিটকে পড়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে গুরুতর আহত হন। পরে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে ফেনী ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। গতকাল সন্ধ্যায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়।

বিজ্ঞাপন

এ বিষয়ে কথা বলতে শাহ নেওয়াজের পরিবারের কোনো সদস্যকে পাওয়া যায়নি।
ফেনী ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) মো. ইকবাল হোসেন বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত শাহ নেওয়াজের লাশের ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। আজ সোমবার ময়নাতদন্ত শেষে পুলিশের সহায়তায় তাঁর লাশ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

সোনাগাজী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত মোটরসাইকেলটি থানায় রাখা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন