বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মামলার বাদী সাহাব উদ্দিন জানান, গত কয়েক দিন আগে স্বামীর বাড়ি থেকে দুই মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসেন ওই গৃহবধূ। গতকাল সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় তাঁর দুই মেয়ে ও আরও দুজন স্বজনকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ির পাশে মিয়ার বাজারে কেনাকাটা করতে যান। তাঁরা বাজারে পৌঁছার আগমুহূর্তে জামাল উদ্দিন সাইকেল চালিয়ে এসে ওই গৃহবধূর গলায় থেকে সোনার চেইন টান দিয়ে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন।

এ সময় তাঁদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে এগিয়ে আসেন। জামাল উদ্দিন তখন পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয় লোকজন তাঁকে ধাওয়া করে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।

আমিরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জহিরুল আলম প্রথম আলোকে বলেন, তিনি বিষয়টি শুনেছেন। অপরাধী যে–ই হোক, পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা নেবে। ছিনতাইয়ের ঘটনায় তাঁর গ্রাম পুলিশ দোষী সাব্যস্ত হলে পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেবে। তবে গ্রাম পুলিশ জামাল উদ্দিন ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন বলে তিনি দাবি করেন।

সোনাগাজী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জামাল অভিযোগ স্বীকার করেছেন। আজ দুপুরে তাঁকে আদালতের মাধ্যমে ফেনীর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন