বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গ্রেপ্তার হওয়া সোনাতলা পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর আলম জেলা শ্রমিক লীগের সহসভাপতি। গতকাল রাতে বগুড়া জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) ও সোনাতলা থানা–পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে তাঁকে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করে। বগুড়ায় নিয়ে আসার পর আজ সোমবার তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সোনাতলা থানার ওসি রেজাউল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ৩ নভেম্বর নির্বাচন–পরবর্তী সহিংসতার ঘটনায় বিজয়ী মেয়র জাহাঙ্গীর আলমসহ ৩০ জনকে আসামি করে মামলা করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নবীন আনোয়ার। ওই মামলার পাঁচজনকে আগেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রধান আসামি মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে গতকাল রাতে গ্রেপ্তার করা হয়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ৩ নভেম্বর নির্বাচন–পরবর্তী সহিংসতায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মিনহাদুজ্জামান ছাড়াও উভয় পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হন।

২ নভেম্বর সোনাতলা পৌরসভা নির্বাচন হয়। নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীকে ২ হাজার ৭৪২ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান মেয়র জাহাঙ্গীর আলম। তিনি নারকেলগাছ প্রতীকে ৭ হাজার ৯৬৩ ভোট পেয়েছেন। অন্যদিকে তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শাহিদুল বারি খান নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৫ হাজার ২২১ ভোট।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন