default-image

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে জনতার সহায়তায় কক্সবাজারের পেকুয়া থানার পুলিশ এক তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে। জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ কল পেয়ে পুলিশ এ অভিযান চালায়।

গতকাল রোববার রাত সাড়ে আটটার দিকে পেকুয়া উপজেলা থেকে ওই তরুণকে গ্রেপ্তার ও স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ওই ছাত্রী বাদী হয়ে তরুণের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করে। মেয়েটি স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী।

পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেপ্তার তরুণ মো. নুর আবিদ হোসেনকে (২২) আজ সোমবার চকরিয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে।

বিজ্ঞাপন

মামলার এজাহার, পুলিশ, ছাত্রীর পরিবার ও স্থানীয় সূত্র জানায়, বিদ্যালয়ে যাওয়া-আসার পথে ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করতেন নুর আবিদ। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে ছাত্রীর ঘরে কেউ না থাকার সুযোগে নুর আবিদ তাকে ধর্ষণ করেন। পরে বিয়ের বিষয় নিয়ে দুজনের মধ্যে তর্কাতর্কি হয়। নুর আবিদ বিয়েতে অস্বীকৃতি জানালে ছাত্রী চিৎকার দেন। পরে স্থানীয় লোকজন গিয়ে তাঁকে আটক করেন। ছাত্রীর মা এক মাস ধরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তার বাবা মারা গেছেন।
স্থানীয় লোকজন বলেন, গতকাল সারা দিন নুর আবিদ ও মেয়েটির পরিবার ধর্ষণের বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসার চেষ্টা করে। একপর্যায়ে রাত আটটার দিকে জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ কল করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওই তরুণকে গ্রেপ্তার ও ছাত্রীটিকে উদ্ধার করে।

পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুর রহমান মজুমদার বলেন, নুর আবিদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা হয়েছে। আজ ছাত্রীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে। গ্রেপ্তার তরুণকে চকরিয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন