default-image

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলায় দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীর অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক মেসেঞ্জারে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে এক তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওই ছাত্রীর বাবার করা মামলায় আজ বৃহস্পতিবার মনিরুল ইসলাম (২২) নামের ওই তরুণকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার মনিরুলের বাড়ি দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলায়।

থানা–পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার একটি গ্রামে তাঁর নানার বাড়িতে থেকে স্থানীয় একটি উচ্চবিদ্যালয়ে দশম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে ওই স্কুলছাত্রী। ওই গ্রামে মনিরুল ইসলামের ভগ্নিপতির বাড়ি। মনিরুল তাঁর ভগ্নিপতির বাড়িতে যাতায়াত করতেন। একপর্যায়ে ওই স্কুলছাত্রীর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এর জেরে গত বছরের ২৬ নভেম্বর দুপুরে বখাটে তরুণ তাঁর ভগ্নিপতির বাড়িতে ডেকে নিয়ে গিয়ে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন এবং গোপনে ভিডিও ধারণ করেন। পরবর্তী সময়ে ওই বখাটে ভিডিওটি তাঁর বন্ধুবান্ধবসহ বিভিন্নজনের মধ্যে মেসেঞ্জারের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মেয়েটির অশ্লীল ছবি ফেসবুক মেসেঞ্জারে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। পুলিশ আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে আসামি মনিরুলকে গ্রেপ্তার করেছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন