default-image

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলায় বিয়ের কথা বলে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে ওই ছাত্রী বিয়ের দাবিতে মাকে নিয়ে অভিযুক্ত ছেলের বাড়িতে যায়। এ সময় মা–মেয়েকে মারধর এবং কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। এ ঘটনায় মেয়েটির মা বাদী হয়ে মঙ্গলবার থানায় ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেছেন।

পুলিশ জানায়, জামিল মৃধা নামের এক তরুণের সঙ্গে নবম শ্রেণির ওই ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সেই সম্পর্কের সূত্র ধরে বিয়ের কথা বলে গত সোমবার মেয়েটিকে ডেকে নিয়ে জামিল ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগে বলা হয়। মঙ্গলবার বিয়ের দাবিতে মেয়েটি তাঁর মাকে নিয়ে জামিলের বাড়িতে যান। এ সময় জামিলের মা–বাবা ও চাচা-চাচি তাঁদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। একপর্যায়ে তাঁদের মারধর ও বটি দিয়ে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। পরে তাঁরা কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফেরেন।

কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন চৌধুরী বলেন, এ ঘটনায় মেয়েটির মা থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন