default-image

কিশোরগঞ্জে স্কুলছাত্র তোফায়েল হত্যা মামলায় মেয়ের মৃত্যুদণ্ড ও মায়ের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে মা-মেয়েকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। কিশোরগঞ্জের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুহাম্মদ আবদুর রহিম রোববার দুপুরে এই রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত দুজন হলেন রিনা আক্তার (৫২) ও তাঁর মেয়ে জুয়েনা আক্তার (৩০)। সাজাপ্রাপ্ত এই দুজন কিশোরগঞ্জ শহরের বত্রিশ এলাকার দুলাল ভূঁইয়ার স্ত্রী ও কন্যা।

মামলার নথি ও আদালতসংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ২০১২ সালের ১০ মার্চ কিশোরগঞ্জের বত্রিশ আখড়ায় পূজা দেখতে গেলে অষ্টম শ্রেণির ছাত্র তোফায়েলের সঙ্গে একই এলাকার ১২ বছরের এক শিশুর কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে তোফায়েলকে ওই শিশু, তার মা রিনা আক্তার ও বোন জুয়েনা মিলে লাঠি দিয়ে পেটান। গুরুতর আহত অবস্থায় তোফায়েলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে সে মারা যায়। এ ঘটনায় তোফায়েলের বাবা আওলাদ হোসেন বাদী হয়ে কিশোরগঞ্জ সদর থানায় তিনজনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। সেই মামলায় মেয়ের মৃত্যুদণ্ড ও মায়ের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তবে অপর আসামির বয়স কম থাকায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে মামলাটি বিচারাধীন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) আহসান হাবীব মামলার তিন আসামির নামে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী ছিলেন আবু সাইদ ইমাম ও আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন ক্ষীতিশ দেবনাথ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন