বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মারা যাওয়া তিনজন হচ্ছে বীরগঞ্জ উপজেলার সুজালপুর স্লুইসগেট এলাকার বাসিন্দা আফসার আলীর ছেলে শাহাদাত হোসেন (১৬), একই এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে শাহরিয়ার শুভ (১৫) ও শুকুর আলীর ছেলে মো. মুজাহিদ (১৪)।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বীরগঞ্জ উপজেলার কাজী নজরুল ইসলাম উচ্চবিদ্যালয়ে নবম শ্রেণিতে ভর্তি হয় ওই তিন বন্ধু। ভর্তির কাজ শেষ করে মোটরসাইকেলে করে তিনজন বাড়ি ফিরছিল। মোটরসাইকেল চালাচ্ছিল শাহরিয়ার শুভ। তার পেছনে বসা ছিল শাহাদত ও মুজাহিদ। তারা কমরপুর এলাকায় পৌঁছালে কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে তিনজন। এতে ঘটনাস্থলেই মুজাহিদ ও শাহাদতের মৃত্যু হয়। স্থানীয় ব্যক্তিরা গুরুতর আহত অবস্থায় শাহরিয়ারকে বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বীরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানা বলেন, বাড়ি ফেরার পথে কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। কাভার্ডভ্যানটি আটকের চেষ্টা চলছে। নিহত তিনজনের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে।

এদিকে বিরামপুর উপজেলার দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ মহাসড়কের পৌর এলাকায় দোয়েল স্টুডিও মোড়ে গাড়ির চাকায় পিষ্ট হয়ে রাজিব উদ্দিন (৫২) নামের এক সবজি বিক্রেতা নিহত হয়েছেন। আজ সকাল ৯টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। নিহত রাজিব উপজেলার কাটলা ইউনিয়নের উত্তর কাটলা এলাকার বাসিন্দা।

বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত বলেন, বিরামপুর পৌর শহরের নতুন বাজারের সবজির আড়ত থেকে মাল কিনে ব্যাটারিচালিত ভ্যানে বাড়ি ফিরছিলেন রাজিব উদ্দিন। ফুলবাড়ী থেকে আসা হিলিগামী একটি গাড়ির সঙ্গে ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় রাজিব ভ্যান থেকে ছিটকে পড়লে গাড়িটি তার ওপর দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন