default-image

তিন কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে কুষ্টিয়া সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সাবেক হিসাবরক্ষক ও তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বৃহস্পতিবার দুপুরে কুষ্টিয়া দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে মামলাটি করা হয়।

ওই মামলার আসামি দুজন হলেন কুষ্টিয়া সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সাবেক হিসাবরক্ষক আবদুল কুদ্দুস ও তাঁর স্ত্রী আছিয়া খাতুন। তাঁরা কুষ্টিয়া শহরের কোর্টপাড়ার ২/২ শহীদ আবদুল হামিদ সড়কের বাসিন্দা।

বিজ্ঞাপন

একই দিনে জালিয়াতির অভিযোগে পৃথক আরও দুটি মামলা করা হয়েছে। ওই দুই মামলায় দৌলতপুর উপজেলার অবসরপ্রাপ্ত সাব রেজিস্ট্রার শরিয়ত হোসেন (৬১), দৌলতপুর উপজেলার শেরপুর গ্রামের বদর উদ্দীনের স্ত্রী বাছি খাতুন (৪২), নারায়ণপুর গ্রামের বাসিন্দা ও দলিল লেখক মো. বাহাউদ্দিন (৪৮) ও শেরপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. লোকমান হোসেনকে (৩৯) আসামি করা হয়েছে। মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, সাবেক সাব রেজিস্ট্রার শরিয়ত হোসেন তিনজনের যোগসাজশে মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে দলিল তৈরি করে অর্থ জালিয়াতি করেছেন।

কুষ্টিয়া দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপসহকারী পরিচালক মো. নাছরুল্লাহ হোসাইন বাদী হয়ে মামলা তিনটি করেন। ওই কার্যালয়ের উপপরিচালক মো. জাকারিয়া প্রথম আলোকে বলেন, আইন মোতাবেক তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য পড়ুন 0