বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বিকেলে এলাকাবাসীর মাধ্যমে পুলিশ জানতে পারে উপজেলার রূপনারায়ণকুড়া ইউনিয়নের আয়নাতলী গ্রামে ১৩ বছর বয়সী এক শিশুর বিয়ে হচ্ছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বাল্যবিবাহের আয়োজন বন্ধ করে দেয়। এ সময় বরকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

রাত ১০টার দিকে ইউএনও হেলেনা পারভীন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। এ সময় মোশারফ হোসেন ভুল স্বীকার করায় তাঁকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ওই কিশোরী সম্পর্কে মোশারফের চাচাতো বোন। এদিকে মোশারফ এর আগেও একটি বিয়ে করেছেন। তাঁর ঘরে স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে আছে।

নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদ প্রথম আলোকে বলেন, এলাকাবাসীর খবরের ভিত্তিতে পুলিশ বাল্যবিবাহ বন্ধ করেছে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাঁর সাজা ঘোষণার পর আজ সকালে মোশারফকে শেরপুর জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন