default-image

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে বরিশাল-ঢাকা আকাশপথে টানা এক বছর বন্ধ থাকার পর আজ শুক্রবার আবার চালু হলো বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট। মহান স্বাধীনতা দিবসের সকালে বাংলাদেশ বিমানের আধুনিক ও নতুন উড়োজাহাজ ‘শ্বেত বলাকা’ ৭২ জন যাত্রী নিয়ে বরিশাল বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

সকাল সাড়ে নয়টায় বরিশাল বিমানবন্দরে উড়োজাহাজটি অবতরণ করে। পরে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক আনুষ্ঠানিকভাবে ফিতা কেটে এর উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার মো. সাইফুল হাসান।

মহান স্বাধীনতা দিবসের সকালে বাংলাদেশ বিমানের আধুনিক ও নতুন উড়োজাহাজ ‘শ্বেত বলাকা’ ৭২ জন যাত্রী নিয়ে বরিশাল বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেন, ‘আমরা জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী পালন করছি এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্‌যাপন করছি। এ দুটির মহালগ্নে বরিশাল-ঢাকা আকাশপথে বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট চালু হওয়ায় আমরা সবাই গর্বিত ও আনন্দিত।’ তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা ২০৩১ সালে বাংলাদেশে উচ্চমধ্যম আয়ে এবং ২০৪১ সালে সমৃদ্ধিশালী দেশের লক্ষ্যে অগ্রসর হচ্ছি। প্রধানমন্ত্রী আজকের বাংলাদেশকে যে উন্নয়নের পথে নিয়ে যাচ্ছেন, তার ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ বিমানের বহরের সংখ্যা বাড়ছে। একটা সময় দেখেছি, বিমান চলাচল করত, কিন্তু যাত্রী ছিল না। কারণ, তখন সাধারণ মানুষের আর্থিক সংগতি ছিল না। কিন্তু এখন বাংলাদেশ সমৃদ্ধিশালী দেশের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। আমাদের আর্থিক সংগতি অনেক বেড়েছে। ফলে সরকারি-বেসরকারি বেশ কয়েকটি উড়োজাহাজ সংস্থার ফ্লাইট চালু থাকার পরও বরিশাল-ঢাকা রুটে টিকিট পাওয়া যায় না।’

বিজ্ঞাপন
গত বছরের ২১ মার্চ বিমান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এরপর বরিশাল বিভাগের সব জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন দপ্তরের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা বিমানের ফ্লাইট পুনরায় যাতে চালু হয়, সে জন্য চেষ্টা করেছেন। এ জন্য তাঁদের ধন্যবাদ জানাই।
জাহিদ ফারুক, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বরিশাল তথা দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ অন্যান্য সরকারের সময় অবহেলিত থাকে। শুধু যখন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার আসে, তখন এ অঞ্চলের উন্নয়ন হয়। আজ দক্ষিণাঞ্চলে পায়রাবন্দর হচ্ছে, পদ্মা সেতুর কাজ প্রায় শেষের পথে। পদ্মা সেতু থেকে পায়রাবন্দর পর্যন্ত চার লেনের রাস্তা হবে, রেললাইন হবে। এগুলো হলে শিল্প-কারখানা স্থাপন বাড়তে থাকবে, মানুষের কর্মসংস্থান হবে, অর্থনৈতিকভাবে এ অঞ্চলের মানুষ আরও স্বাবলম্বী হবে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘গত বছরের ২১ মার্চ বিমান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এরপর বরিশাল বিভাগের সব জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন দপ্তরের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা বিমানের ফ্লাইট পুনরায় যাতে চালু হয়, সে জন্য চেষ্টা করেছেন। এ জন্য তাঁদের ধন্যবাদ জানাই।’

অনুষ্ঠানে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও সিইও আবু সালেহ মোস্তফা কামালসহ বিভাগীয়, জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাসহ বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন