বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, ওই মাইক্রোবাসের যাত্রীরা শান্তিগঞ্জের পাগলা ইউনিয়নের শত্রুমর্দন গ্রামে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে রাতে তাঁরা ওই মাইক্রোবাসে করে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হন। রাত নয়টার দিকে মাইক্রোবাসটি ডাবর পয়েন্টে পৌঁছালে সেখানে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা মালবাহী একটি ট্রাককে মাইক্রোবাসটি পেছন থেকে ধাক্কা দেয়।

এতে মাইক্রোবাসটি দুমড়েমুচড়ে গেলে ১১ যাত্রী গুরুতর আহত হন। এর মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় খোকন, নিলয় ও প্রণবকে উদ্ধার করে সিলেটের এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁদের মৃত ঘোষণা করেন।

শান্তিগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী মুক্তাদির হোসেন বলেন, তিনজনের লাশ এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আছে। ময়নাতদন্তের পর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন