default-image

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। লাশের পাশে পড়ে ছিল মুঠোফোন ও স্যান্ডেল। আজ সোমবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের থমতলা এলাকার সড়ক থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

লাশ উদ্ধার হওয়া ওই ব্যক্তির নাম মাহমুদুল করিম (৪২)। তিনি কক্সবাজার সদর উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের মাদ্রাসাপাড়ার মৃত আবদুস সমদের ছেলে। সাত বছর ধরে পরিবার নিয়ে খুটাখালীর থমতলা পাহাড়ি এলাকায় বসবাস করছিলেন মাহমুদুল।

মাহমুদুল করিমের স্ত্রী সাজেদা বেগম বলেন, গতকাল রোববার রাত ১০টার দিকে ঘরে ফেরেন মাহমুদুল। তবে শরীর ভালো যাচ্ছে না বলে তিনি ভাত খাননি। চেয়ার নিয়ে কিছুক্ষণ বারান্দায় অবস্থান করেন। রাত ১১টার দিকে তাঁর ঘুম পেলে ঘুমিয়ে যান। সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখেন মাহমুদুল করিম বাড়িতে নেই। সকাল ছয়টার দিকে এলাকার লোকজন খবর দেন, বসতঘরের সামনের সড়কে মাহমুদুল করিমের লাশ পড়ে আছে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য জসিম উদ্দিন বলেন, মাহমুদুল করিম দিনমজুরের কাজ করতেন। কয়েক মাস আগে গ্রামে একটি দোকান দেন। সেই দোকানের আয় থেকে সংসার চলত। তাঁর সঙ্গে কারও শত্রুতার কথা তাঁর জানা নেই।
স্থানীয় লোকজন বলেন, গলায় ছুরিকাঘাত করে মাহমুদুল করিমকে হত্যা করা হয়েছে। লাশের পাশে তাঁর ব্যবহৃত মুঠোফোন ও স্যান্ডেল পড়ে ছিল।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মুহাম্মদ যুবায়ের বলেন, লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। মাহমুদুল করিমকে হত্যার রহস্য উদ্‌ঘাটনের চেষ্টা করছে পুলিশ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন