বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, হবিগঞ্জ শহরের মোহনপুর আবাসিক এলাকার বাসিন্দা ও যুক্তরাজ্যপ্রবাসী আবিদ আলী বেশ কিছুদিন ধরে বাড়ি নির্মাণের কাজ করছেন। কিন্তু তাঁর প্রতিবেশী ও জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য নুরুল ইসলাম চৌধুরী অভিযোগ করছিলেন, আবিদ আলী ইমারত আইন অনুসরণ না করে সীমানা ঘেঁষে এ ভবন নির্মাণ করছেন। এ নিয়ে বুধবার বিকেলে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে সন্ধ্যার দিকে একদল লোক আইনজীবী নুরুল ইসলামকে তাঁর বাসার ল চেম্বারে ঢুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। তিনি মাথায় আঘাত পান। মুমূর্ষু অবস্থায় তাঁকে হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালের চিকিৎসকেরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দ্রুত ঢাকায় পাঠান।

আহত আইনজীবী নুরুল ইসলাম চৌধুরী অভিযোগ করছিলেন, তাঁর প্রতিবেশী আবিদ আলী ইমারত আইন অনুসরণ না করে সীমানা ঘেঁষে ভবন নির্মাণ করছেন।

এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে হবিগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতি আজ দুপুরে প্রতিবাদ সভা করে। সভায় এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানান আইনজীবীরা। সমিতির সভাপতি মঞ্জুর উদ্দিন আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরহাদ এলাহী এ বিষয়ে পুলিশ প্রশাসনের তৎপরতা দাবি করেন।

অভিযুক্ত যুক্তরাজ্যপ্রবাসী আবিদ আলীর বক্তব্য জানতে তাঁর মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুক আলী প্রথম আলোকে বলেন, বাড়ির সীমানা নির্ধারণ নিয়ে বিরোধের জেরে ঘটনাটি ঘটেছে। পুলিশ এ বিষয়ে এখনো অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন