বাম গণতান্ত্রিক জোট বরিশালের সমন্বয়ক অধ্যাপক দুলাল মজুমদারের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ–সমাবেশে বক্তব্য দেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) বরিশাল জেলার সদস্য সচিব মনীষা চক্রবর্তী, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট জোটের জেলা আহ্বায়ক অধ্যাপক জলিলুর রহমান, শ্রমিক নেতা এ কে আজাদ, গণসংহতির আহ্বায়ক দেওয়ান আবদুর রশিদ, নৌযান ফেডারেশনের সভাপতি মাস্টার আবুল হাসেম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, সরকার ১০ টাকা কেজি দরে চাল দেওয়ার কথা বলেছিল। কিন্তু সেই অঙ্গীকার রাখেনি সরকার। তারা জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। উপরস্তু আজ দেশের নিত্যপণ্যের বাজার লাগামহীন। ভোজ্যতেলের লিটার ২০০ টাকা হয়েছে। চাল, ডাল, পেঁয়াজ, গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানির দাম অসহনীয়। শ্রমজীবীরা আজ দৈনন্দিন ব্যয়ভার বহন করতে পারছে না। দাম বাড়ার কারণে সরকার সবাইকে পেঁয়াজ না খাওয়ার পরার্মশ দিয়েছে। ভোজ্যতেল কম খেতে বলছে। তবু দাম কমানোর কোনো উদ্যোগ নেবে না। কিছুদিন পর দেখা যাবে সরকার মানুষকে ভাত না খাওয়ারও পরামর্শ দেবে।

বাম নেতারা বলেন, এই সরকার ব্যবসাবান্ধব। তাই ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটকে নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ হওয়ায় নিত্যপণ্যের দাম বেড়েছে। মানুষের পকেট কাটা এই পয়সা সরকারের লোকজনের পকেট ভারী করছে। দেশে-বিদেশে টাকার, সম্পদের পাহাড় গড়ছে। সরকারের এই গণবিরোধী কার্যকলাপ ও মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বরিশালসহ সারা দেশে সোমবার সকাল ৬টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত হরতালের ডাক দেওয়া হয়েছে।
সভা শেষে নেতা-কর্মীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। মিছিলটি নগরের প্রধান সড়ক ঘুরে আবার টাউন হলের সামনে এসে শেষ হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন