গ্রামের বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বেড়বিন্নি গ্রামের শহিদুল ইসলাম ও শেখপাড়া বিন্নি গ্রামের সিরাজুল ইসলামের সমর্থকদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এক সপ্তাহ আগে বেড়বিন্নি বাজারে শহিদুল ইসলামের সমর্থক বিজু আহমেদ ও বকুল হোসেনকে মারধর করেন প্রতিপক্ষরা। এরই জের ধরে আজ সকালে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে তিনজনকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে আলতাফ বিশ্বাস মারা যান। বাকিদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

সদর হাসপাতালের চিকিৎসা কর্মকর্তা রেজওয়ান আক্তার বলেন, হরিণাকুণ্ডু উপজেলার বেড়বিন্নি গ্রামে মারামারিতে আহত হয়ে তিনজন রোগী হাসপাতালে আসেন। তাঁদের মধ্যে আলতাফ হোসেন বিশ্বাস মারা গেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, মাথায় আঘাতের কারণে তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

হরিণাকুণ্ডু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, সকালে বেড়বিন্নি গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে কয়েকজন ব্যক্তি আহত হয়েছেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সদর হাসপাতালে একজন মারা গেছেন। এ ঘটনায় রায়হান উদ্দিন নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন