বিজ্ঞাপন

চলতি বছর থেকে অস্থায়ী ক্যাম্পাসে এই মেডিকেল কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার শান্তিগঞ্জ এলাকায় নবনির্মিত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অস্থায়ীভাবে এই শিক্ষা কার্যক্রম চলবে। এ জন্য শিক্ষার্থী ভর্তি চলছে। এ পর্যন্ত ৪৪ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছেন। পাঠদান শুরু হবে ১ আগস্ট থেকে।

পাশাপাশি সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার কাঠইর এলাকায় বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ ও ৫০০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালের স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণ প্রকল্পের কাজ চলছে। ৩৫ একর জমির ওপর নির্মিতব্য এই প্রকল্পে ব্যয় হবে ১ হাজার ১০৭ কোটি টাকা।

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান মতবিনিময় সভায় আরও বলেন, ‘আমরা পরাধীন ছিলাম। শোষণ-বঞ্চনা ছিল আমাদের নিত্যসঙ্গী। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। তিনি আমাদের স্বাধীন দেশ উপহার দিয়েছেন। এখন তাঁর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সব ক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের এই উন্নয়ন-অগ্রগতি কেউ থামাতে পারবে না।’

সুনামগঞ্জে প্রতিষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজকে আধুনিক ও উন্নত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে এগিয়ে নিতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবেন বলে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের আশ্বাস দেন পরিকল্পনামন্ত্রী।

সভায় অন্যদের মধ্যে মেডিকেল কলেজটির অধ্যক্ষ মনোজিত মজুমদার, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আনোয়ার উজ জামান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন শরিফী, বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজের শিক্ষক শাহাদাৎ হোসেন, সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হায়াতুন নবী, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নুর হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন