বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর হাতীবান্ধার ১২টি ইউপিতে নির্বাচন হয়। এই নির্বাচন নিয়ে প্রশাসন ব্যস্ত থাকার সুযোগে ডাউয়াবাড়ি ইউনিয়নের ৬, ৭ ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডের প্রায় এক কিলোমিটার রাস্তার ছোট-বড় ৪০০ গাছ কেটে ২০ লাখ টাকা বিক্রি করেছেন ইউপি সদস্য আকতারুজ্জামান।
ইউপি সদস্য আকতারুজ্জামান বলেন, ‘২০১৩ সালে ১১ সদস্যবিশিষ্ট আলোক উজ্জ্বল শাপলা সংঘ নামে একটি সমিতির মাধ্যমে ইউপির সঙ্গে ১০ বছরের চুক্তি করে তিনটি রাস্তায় বৃক্ষরোপণ করি। ওই সমিতির আমি একজন সদস্য।’

ওই ইউনিয়নের আলোক উজ্জ্বল শাপলা সংঘ সমিতির সভাপতি আবু তালেব বলেন, ‘গাছ কাটার বিষয়ে লিখিতভাবে কাউকে কিছু জানাইনি। কোনো দরপত্রও করা হয়নি। ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রেজ্জাকুল ইসলামকে মৌখিকভাবে জানিয়ে গাছ কেটেছি। এটা আমার ভুল হয়েছে।’

এ বিষয়ে ডাউয়াবাড়ি ইউপি সচিব আজাহারুল ইসলাম বলেন, চুক্তি অনুযায়ী ১০ বছর পর তাদের গাছ কাটার কথা ছিল। কিন্তু ১০ বছর না হতেই তারা ইউপিকে না জানিয়ে এসব গাছ কেটেছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে।

ডাউয়াবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান রেজ্জাকুল ইসলাম বলেন, ‘আমি এ বিষয়ে কিছু জানি না। নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন