default-image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে আপত্তিকর, অশ্লীল ও ব্যঙ্গাত্মক ছবি ছড়ানোর অভিযোগে বগুড়া শহরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকের কর্মচারী রবিউল ইসলামকে (১৯) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শাজাহানপুর থানা–পুলিশ বুধবার উপজেলার রহিমাবাদ উত্তরপাড়ার নিজ বাড়ি থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

রবিউল উপজেলার রহিমাবাদ উত্তরপাড়া গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে।

শাজাহানপুর থানা–পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রবিউল বগুড়া শহরের কলোনি এলাকার বেসরকারি রেইনবো ক্লিনিকে পিয়ন পদে চাকরি করতেন। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরকে কেন্দ্র করে তিনি নিজ নামে খোলা ফেসবুক পেজ থেকে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে আপত্তিকর, অশ্লীল ও ব্যঙ্গাত্মক ছবি পোস্ট দেন। বিষয়টি নজরে এলে শাজাহানপুর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক গোলাম গাউছ লিমন বাদী হয়ে বুধবার শাজাহানপুর থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন।

শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল মামুন প্রথম আলোকে বলেন, ছাত্রলীগ নেতা বাদী হয়ে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা দায়েরের পরপরই একমাত্র আসামি রবিউল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়। বুধবার তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন