বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সিন্ডিকেট সভা সূত্রে জানা গেছে, যেসব শিক্ষার্থী অন্তত এক ডোজ করোনার টিকা নিয়েছেন, শুধু তাঁরাই ১১ অক্টোবর থেকে হলে উঠতে পারবেন। এরপর পর্যায়ক্রমে টিকা নেওয়ার ভিত্তিতে শিক্ষার্থীরা হলে উঠবেন। তবে প্রথম বর্ষের (৪৯তম ব্যাচ) শিক্ষার্থীরা এখনই হলে উঠতে পারছেন না। তাঁদের প্রথম বর্ষের পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর আবাসিক হলে আসন খালি থাকা সাপেক্ষে হলে উঠবেন।

সূত্র জানায়, অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম যেভাবে চলছে, সেভাবেই চলতে থাকবে। ২১ অক্টোবরের পর থেকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা চাইলে সশরীর ক্লাস-পরীক্ষা চালাতে পারবেন।

করোনা সংক্রমণের কারণে গত বছরের ১৮ মার্চ থেকে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রয়েছে। এরপর শিক্ষার্থীরা বেশ কয়েকবার আন্দোলন করলেও বিশ্ববিদ্যালয় খোলার ব্যাপারে কোনো আলোচনা করেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে গত বছরের ১২ জুলাই সীমিত পরিসরে বিশ্ববিদ্যালয়ের দাপ্তরিক কার্যক্রম শুরু হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন