default-image

ঢাকা–১০ আসনের উপনির্বাচনে হাজারীবাগের মনেশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে মোট ভোটের ১৫ শতাংশ দিয়ে দেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টির অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই কর্মকর্তা বলছেন, তিনি ভোট না দিয়ে দিলে তাঁকে কেন্দ্র থেকে বের হতে দেওয়া হবে না বলে হুমকি দেওয়া হয়েছে। সরকারি দলের এক কর্মী এই হুমকি দেন বলে তাঁর অভিযোগ।

সকাল ৯টায় ভোট শুরু হয়। মনেশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ সাঈদ আবদুল্লাহ প্রথম আলোকে বলেন, ‘সাড়ে আটটার দিকে মোহাইমেন বয়ান নামে নৌকা প্রতীকের পক্ষে কাজ করেন। পরিচয় দিয়ে এসে উত্তেজিত হয়ে কথা বলেন। ওই ব্যক্তি আমাকে বলেছেন, ১৫ শতাংশ ভোট আপনার পুরো দিতে হবে। আমি বলেছি, আমার দ্বারা সম্ভব না। বলছে যে আজকে আপনি বাড়িতে যাইতে পারবেন না। এরপরে আরও কয়েকজন এসে একই দাবি করতে থাকেন।’

নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা এই কর্মকর্তা জানান, হুমকির বিষয়ে তিনি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানালে পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য বলেন। এরপর হাজারীবাগ থানার দুজন এসআই আরিফুর রহমান ও তারেক রাজীব সেখানে যান। মুহাম্মদ সাঈদ আবদুল্লাহ বলেন, পুলিশ কেন্দ্রে গিয়ে রাজনৈতিক কর্মীদের সঙ্গে কোনো তর্কে না যাওয়ার কথা বলেন এবং তারা যা বলে তা মেনে নিতে বলেছেন। এই কর্মকর্তা বলেন, তিনি শঙ্কিত বোধ করছেন।

এ ব্যাপারে মোহাইমেন বয়ানের কাছে জানতে চাইলে তিনি প্রথম আলোকে বলেন, ওই কেন্দ্রে তিনি যাননি। তিনি বলেন, গত সিটি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় দুটি গ্রুপ তৈরি হয়। কেউ তাঁর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে।

হাজারীবাগ থানার এসআই আরিফুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, তিনি টহলে গিয়েছেন। রাজনৈতিক বিষয় তাই কোনো তর্কে না যাওয়ার জন্য বলা হয় প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে। তিনি যেন তাঁর দায়িত্ব পালন করেন সে কথা বলেছেন।

এ কেন্দ্রে ভোটারের সংখ্যা ২৫৯৮। বেলা সোয়া একটা পর্যন্ত ১২৯টি ভোট পড়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0