বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পার্ক ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন মূল্য পরিশোধ বাবদ জেআই ইমপ্লেক্স লিমিটেডের নামে একটি পে-অর্ডার ইস্যু করে। আল-আরাফা ইসলামী ব্যাংক থেকে টাকা তোলার তারিখ দেওয়া হয় ২১ মার্চ। ২২ মার্চ বিকেলে মাসুদ রানা ও পৌর শহরের চণ্ডীবের উত্তর পাড়া এলাকার বাসিন্দা শামীম আহমেদ পার্ক ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশনের পক্ষে পে-অর্ডারটি নিয়ে জেআই ইমপ্লেক্স লিমিটেড কার্যালয়ে যান। নিজেকে ব্যবসায়ী পরিচয় দেন শামীম আহমেদ।

পে-অর্ডারটি হাতে পাওয়ার পর জেআই ইমপ্লেক্স লিমিটেডে কর্মরত ব্যক্তিদের সন্দেহ হয়। এরপর বিষয়টি যাচাইয়ের জন্য আল-আরাফা ইসলামী ব্যাংক ভৈরব শাখায় পাঠানো হয়। সেখান থেকে জানানো হয়, পে-অর্ডারটি ভুয়া। পরে পুলিশ ওই দুজনকে গ্রেপ্তার করে।

এই ঘটনায় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ প্রতারণার অভিযোগ এনে মামলা করলে পার্ক ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশনের মালিক আবু মাছুম মো. মোতাসিনকে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে বিদ্যুৎ বিভাগের তদন্ত ও শৃঙ্খলা বিভাগ থেকে ১৮ এপ্রিল মাসুদ রানাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। মাসুদ রানা বর্তমানে জেলহাজতে।

মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা ভৈরব শহর ফাঁড়ির ইনচার্জ শ্যামল মিয়া বলেন, পে-অর্ডার জালিয়াতির সঙ্গে তিনজন জড়িত ছিলেন। তিনজনকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন