default-image

রূপন আচার্যের (৩২) কাছে ৩০০ টাকা পেতেন বন্ধু রুবেল দাশ। ওই টাকা চাইলে দুজনের মধ্যে তর্ক শুরু হয়। একপর্যায়ে লোহার কিছু একটা দিয়ে রূপনকে পেটাতে শুরু করেন রুবেল। আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান রূপন।

গতকাল বুধবার রাত আটটার দিকে চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার চাতরী ইউনিয়নের কৈনপুরা এলাকায় আশ্রমের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রূপন আচার্য হলেন মৃত রাখাল আচার্যের ছেলে। অভিযুক্ত রুবেল হলেন প্রতিবেশী বাদল দাশের ছেলে। দুজনের মধ্যে ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্ব ছিল।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বুধবার রাত আটটার দিকে রূপন আচার্যের কাছে ধার দেওয়া ৩০০ টাকা ফেরত চান রুবেল দাশ। ওই সময় দুজনের মধ্যে কথা–কাটাকাটি হলে একপর্যায়ে লোহার বস্তু দিয়ে রূপনকে আঘাত করেন রুবেল। এতে রূপন গুরুতর আহত হলে স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে কর্ণফুলী উপজেলার ক্রসিং এলাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেন। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিজ্ঞাপন

এদিকে রাতে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে আজ বৃহস্পতিবার ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। সন্ধ্যা ছয়টার সময় নিহতের লাশ বাড়িতে নেওয়া হয়েছে।

নিহত রূপনের ভাই হারাধন আচার্য বলেন, ‘আমার ভাইয়ের কাছে রুবেল ৩০০ টাকা পেত বলে শুনেছি আমি। এ জন্য একজন মানুষকে এভাবে মেরে ফেলতে হবে?’

আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম দিদারুল ইসলাম সিকদার বলেন, মাত্র ৩০০ টাকার জন্য রূপনকে খুন করা হয়েছে বলে তাঁরা জানতে পেরেছেন। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন