গত বৃহস্পতিবার রাত ১২টা থেকে শুক্রবার রাত ১২টা পর্যন্ত এবার ঈদ মৌসুমে সর্বোচ্চ টোল আদায় হয়। ওই দিন ৪২ হাজার ১৯৯টি যানবাহন পারাপার হয়। এ থেকে টোল আদায় হয় ৩ কোটি ১৮ লাখ ৮ হাজার টাকা।

সবচেয়ে বেশি যানবাহন পারাপার হয়েছে গত শুক্রবার রাত ১২টা থেকে শনিবার রাত ১২টা পর্যন্ত। ওই সময়ে ৪৩ হাজার ২৫৭টি যানবাহন পারাপার হয়। টোল আদায় হয় ৩ কোটি ১৪ লাখ ৮৩ হাজার ৪৫০ টাকা।

এ ছাড়া গত বুধবার রাত ১২টা থেকে বৃহস্পতিবার রাত ১২টা পর্যন্ত ৩৩ হাজার ৭৩৪টি যানবাহন পারাপার হয়। এতে টোল আদায় হয় ২ কোটি ৭৭ লাখ ২৯ হাজার ৫০০ টাকা।

সর্বশেষ গত শনিবার রাত ১২টা থেকে গতকাল রোববার রাত ১২টা পর্যন্ত ৩৪ হাজার ১৩৭টি যানবাহন পারাপার হয়। টোল আদায় হয় ২ কোটি ৫৯ লাখ ৯৯ হাজার ৮০০ টাকা। গতকাল দুপুরের পর থেকে গাড়ির চাপ অনেক কমতে থাকে। আজ সোমবার স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে অনেক কম যানবাহন পারাপার হয়েছে।

এবার ঈদ মৌসুমে বিপুলসংখ্যক মোটরসাইকেল সেতু পারাপার হয়েছে, যা রেকর্ড। বুধবার রাত ১২টা থেকে শনিবার রাত ১২টা পর্যন্ত ৭২ ঘণ্টায় ২১ হাজার ৩৬০টি মোটরসাইকেলে সেতু পারাপার হয়। ওই ৭২ ঘণ্টায় পারাপার হওয়া মোট যানবাহনের ১৭ দশমিক ৯২ ভাগ মোটরসাইকেল। মোটরসাইকেলের জন্য এবার পৃথক দুটি লেন করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু সেতু সাইড অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান মাসুদ বলেন, এবার ঈদে মহাসড়কে গাড়ির সংখ্যা বেশি ছিল। সেতুর সব টোল বুক চালু রাখা হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন