বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দুটি আধুনিক অস্ত্রোপচার কক্ষ রয়েছে। এ ছাড়া হাসপাতালে ব্লাড ব্যাংক, অটোক্ল্যাব (যন্ত্রপানি বিশুদ্ধকরণ বৈদ্যুতিক যন্ত্র) থাকলেও অবেদনবিদ ও ব্লাড ব্যাংক টেকনিশিয়ান না থাকায় নারীদের জন্য সংরক্ষিত অস্ত্রোপচার কক্ষটি পড়ে ছিল। এতে ওই অস্ত্রোপচার কক্ষের সব যন্ত্রপাতি নষ্ট হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছিল।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা নোমান মিয়া প্রথম আলোকে বলেন, এখানে এক বছর আগে গাইনি চিকিৎসক মারিয়া পারভিন যোগদান করেছেন। কিন্তু অবেদনবিদ সুরজিৎ ঘোষ যোগদান করেছেন মাত্র এক মাস আগে। তাই এখানে আজ জরুরি প্রয়োজনে এক নারীর সিজার করা সম্ভব হয়েছে। এখানে অল্প খরচে ওই পরিবারটি অস্ত্রোপচার করাতে পেরেছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন