default-image

নাফ নদীতে মাছ শিকারের সময় ধরে নিয়ে যাওয়া ৯ জন বাংলাদেশি জেলেকে আজ বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা পর্যন্ত ফেরত দেয়নি মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি)। এর আগে গতকাল মঙ্গলবার বেলা তিনটার দিকে নাফ নদী ও বঙ্গোপসাগরের মোহনায় মাছ ধরার সময় নৌকার ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়। এ সময় অস্ত্রের মুখে ওই ৯ জেলেকে নৌকাসহ ধরে নিয়ে যায় বিজিপি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে টেকনাফ–২ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান প্রথম আলোকে বলেন, জেলেদের ধরে নেওয়ার খবর জানার পর বিজিবির পক্ষ থেকে বাংলাদেশি জেলে ও নৌকা ফেরত চাওয়া হয়েছে। তবে এখনো তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়নি। বিজিবির পক্ষ থেকে জেলেদের ফেরত আনার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

নৌকাটির মালিক মোহাম্মদ আমিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, গতকাল নাফ নদী ও বঙ্গোপসাগরের মোহনায় মাছ ধরার সময় জেলে মো. নুরুল আলম (২৭), ইসমাইল হোসেন (২০), মো. ইলিয়াছ (২২), ইউনুছ আলী (২৫), মোহাম্মদ কালা ওরফে কালাবদা মাঝি (৪২), সাইফুল ইসলাম (১৮), সলিম উল্লাহ (২০), মো. কামাল মিয়া (২০) ও মো. লালু মিয়াকে (৩০) ধরে নিয়ে যায় বিজিপি। পরে বিষয়টি স্থানীয় বিজিবির তল্লাশিচৌকিতে জানানো হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ধরে নিয়ে যাওয়া নৌকার মাঝি মোহাম্মদ কালার সঙ্গে মুঠোফোনে মিয়ানমারের সীমান্তচৌকি থেকে কথা হয়েছে। তাঁদের সেখানে একটি কক্ষে আটকে রাখা হয়েছে।

সাবরাং ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৭ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য মোহাম্মদ নুরুল আমিন বলেন, জেলেদের এখনো ফেরত দেওয়া হয়নি। এ ঘটনায় স্থানীয় জেলেপল্লিতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

মন্তব্য পড়ুন 0