default-image

সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলায় কাঁকশিয়ালী নদীতে জেলেদের জালে আটকা পড়েছে অন্য রকমের একটি প্রাণী। বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে এটি জালে আটকায়। কেউ বলছেন, এটি শুশুক। আবার কারও মতে, এটি ডলফিনের কোনো প্রজাতি।

প্রাণীটি কালো ধূসর রঙের। এটি লম্বায় প্রায় ৪০ ইঞ্চি। ওজন ৩৫ কেজি। মুখ অনেকটি লম্বা করাতের মতো।

কালীগঞ্জ উপজেলার উত্তর শ্রীপুর গ্রামের মনোরঞ্জন মণ্ডল বলেন, কাঁকশিয়ালি নদীর ঘোষখালি এলাকায় ৩০ বছর ধরে তিনি মাছ ধরেন। বুধবার রাতেও তিনিসহ কয়েকজন জেলে চিংড়ি মাছ ধরার জন্য জাল পেতেছিলেন। বৃহস্পতিবার ভোর পাঁচটার দিকে জাল তুলতে গিয়ে তিনি দেখেন, বড় ধরনের কিছু একটা জালে আটকা পড়েছে। অন্য জেলেদের সহযোগিতায় ওপরে তুলতে গিয়ে বুঝতে পারেন, সেটি মারা গেছে। এটি মাছ না অন্য কিছু, তা বুঝতে না পেরে স্থানীয় দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান প্রশান্ত কুমার সরকারকে জানান। তিনি সেটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) দেখানোর জন্য নিয়ে গেছেন।

স্থানীয় দক্ষিণ শ্রীপুর ইউপির চেয়ারম্যান প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, মৃত মাছ জাতীয় প্রাণীটিকে তিনি কালীগঞ্জের ইউএনও মোজাম্মেল হককে দেখানোর জন্য দুজন চৌকিদার দিয়ে পাঠিয়ে দেন।

কালীগঞ্জের ইউএনও মোজ্জামেল হক জানান, মৃত প্রাণীটিকে প্রাথমিকভাবে শুশুক মনে হচ্ছে। সেটি মাটি চাপা দিতে বলা হয়েছে।

কালীগঞ্জ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সফিকুল ইসলাম বলেন, বিভিন্ন প্রজাতির ডলফিন সাতক্ষীরার বিভিন্ন নদীতে দেখা যাচ্ছে। এটি ডলফিনের কোনো প্রজাতি হতে পারে। আবার শুশুকও হতে পারে। ভালো করে পরীক্ষা করে এ বিষয়ে পরে জানানোর কথা বলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0