default-image

নড়াইলের কালিয়ায় পাঁচটি অবৈধ ইটভাটা ভেঙে দিয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তর। গতকাল মঙ্গলবার সারা দিন ইটভাটাগুলো ভাঙা হয়। খননযন্ত্র দিয়ে ভাটাগুলো গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে এবং কাঁচা ইট ধংস করা হয়েছে।

ওই ইটভাটাগুলো হলো উপজেলার কুলসুর গ্রামের মেসার্স সিটি ব্রিকস, নোয়া গ্রামের মেসার্স মুছা ব্রিকস, মেসার্স আরবিআই ব্রিকস, মেসার্স কেবিআই ব্রিকস ও মেসার্স মা ব্রিকস। এর তিনটি জিগজ্যাগ ও দুটি ড্রাম চিমনি ভাটা।

বিজ্ঞাপন

অভিযানে নেতৃত্ব দেন পরিবেশ অধিদপ্তরের খুলনা কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাশরুবা ফেরদৌস, পরিবেশ অধিদপ্তর যশোরের উপপরিচালক মো. সাঈদ আনোয়ার ও সহকারী পরিচালক মো. হারুন-অর-রশীদ। তাঁদের সঙ্গে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ দল ছিল।

default-image

 পরিবেশ অধিদপ্তর যশোরের উপপরিচালক মো. সাঈদ আনোয়ার বলেন, পরিবেশগত ছাড়পত্র না থাকায় ওগুলো ভেঙে দেওয়া হয়েছে। অবৈধ ইটভাটাগুলো পর্যায়ক্রমে ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন