অনলাইনে অন্য ব্যাংকে টাকা স্থানান্তরের সীমা বাড়ল

  • ইন্টারনেট ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে টাকা স্থানান্তরের সীমা বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

  • এখন থেকে একজন গ্রাহক এক দিনে ৫ লাখ টাকা স্থানান্তর করতে পারবেন। আর কোনো প্রতিষ্ঠান এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে ১০ লাখ টাকা পাঠাতে পারবে।

  • এখন প্রতি লেনদেনে সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকা পাঠানো যাবে। দিনে লেনদেন করা যাবে সর্বোচ্চ ১০টি।

বিজ্ঞাপন
default-image

ইন্টারনেট ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে টাকা স্থানান্তরের সীমা বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এখন থেকে একজন গ্রাহক এক দিনে ৫ লাখ টাকা স্থানান্তর করতে পারবেন। আর কোনো প্রতিষ্ঠান এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে ১০ লাখ টাকা পাঠাতে পারবে।

এর ফলে গ্রাহকেরা ঘরে বসেই বেশি পরিমাণ টাকা অন্য ব্যাংকে পাঠাতে পারবেন। এতে কমে আসবে গ্রাহক ভোগান্তি। বাংলাদেশ ব্যাংক গতকাল রোববার এ নিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে। তবে এসব সুবিধা কার্যকর হবে ১০ সেপ্টেম্বর থেকে।
প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, একজন গ্রাহক ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ ব্যবহার করে অন্য ব্যাংকে এক দিনে সর্বোচ্চ ৫ লাখ টাকা পাঠাতে পারবেন। আগে দিনে সর্বোচ্চ ২ লাখ টাকা পাঠাতে পারতেন। এখন প্রতি লেনদেনে সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকা পাঠানো যাবে। দিনে লেনদেন করা যাবে সর্বোচ্চ ১০টি।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

একইভাবে কোনো প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ ব্যবহার করে অন্য ব্যাংকে এক দিনে ১০ লাখ টাকা পাঠাতে পারবে। আগে সর্বোচ্চ ২ লাখ টাকা পাঠানো যেত। প্রতি লেনদেনে সর্বোচ্চ সীমা ২ লাখ টাকা। এক দিনে সর্বোচ্চ ২০টি লেনদেন করা যাবে।
ব্যাংকাররা বলছেন, এর ফলে গ্রাহকদের ভোগান্তি কমে আসবে। কারণ, অনেক সময় এক দিনে ২ লাখ টাকার বেশি অন্য ব্যাংকে স্থানান্তরের প্রয়োজন পড়ে। ফলে ব্যাংক শাখায় গিয়ে লাইন দিতে হয়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পূবালী ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আলী প্রথম আলোকে বলেন, এর ফলে গ্রাহকদের আরও সুবিধা হবে। ঘরে বসেই অন্য ব্যাংকে বড় অঙ্কের অর্থ লেনদেন করতে পারবে।

বাংলাদেশের বেশির ভাগ ব্যাংক অনলাইন ব্যাংকিং সুবিধা দিচ্ছে। তবে ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ ব্যবহার করে টাকা পাঠানোর সুযোগ সব ব্যাংকের নেই।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন