বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ বুধবার অনলাইন মাধ্যমে অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন।
কোভিড-১৯–এর কারণে সাধারণ মানুষ বিপদে আছেন। বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হলে মানুষ তা বহন করতে পারবেন কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘মানুষ যাতে বহন করতে পারেন, সে জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। আমার বিশ্বাস, সবাই ভালো আছেন।’

বৈঠকে কয়েকটি ভাড়াভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। মেয়াদ বাড়ানোর কারণ জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এগুলোর মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। তাই বাড়ানো হয়েছে। বিদ্যুৎ না দিলে টাকা পাবেন না, কেন্দ্রগুলোর সঙ্গে এই হচ্ছে সরকারের চুক্তি। তবে আমরা কোনো লোকসানের ব্যবস্থা রাখিনি। এখনো অনেক বিদ্যুৎকেন্দ্র করতে হবে।’

ক্রয় কমিটির বৈঠকে ১২টি প্রস্তাব অনুমোদিত হয়েছে। যাতে ব্যয় হবে ৭২ হাজার ৫৪০ কোটি টাকা। এর মধ্যে সরকারি কোষাগার থেকে ব্যয় হবে ৭০ হাজার ৮২৪ কোটি টাকা। বাকি টাকা ভারত থেকে ঋণ হিসেবে নেওয়া হবে।

বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন