বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

চলতি বছর ভারতের সঙ্গে ব্যবসা আরও ভালো হবে। পার্শ্ববর্তী এ দেশে রপ্তানি বাড়াতে আমাদের প্রত্যাশা, পণ্য পরিবহনে রেল ও নৌ-যোগাযোগ ব্যবস্থা দ্রুত সময়ের মধ্যে উন্নত করতে হবে। যাতে করে আমাদের কারখানার নিকটবর্তী জায়গা থেকে রেলে পণ্য উঠে ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে চলে যেতে পারে। এ নিয়ে আমরা ভারত সরকারের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা ইতিবাচক। রপ্তানি বহুমুখীকরণে আমাদের সরকারকে বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে ভাবতে হবে।

করোনাকালে আমরা পণ্য রপ্তানিতে অনেক নতুন ক্রেতার ক্রয়াদেশ পেয়েছি। পণ্য সরবরাহে চীন, ভারত ও পাকিস্তানের চেয়ে আমরা ভালো করেছি। সব মিলিয়ে করোনার মধ্যে বাংলাদেশের শিল্পকারখানা ভালো করেছে। তাই মহামারি–পরবর্তী সময়েও আমরা ভালো করব।

বিদায়ী বছর সরকারি সংস্থাসহ অন্য সবার মধ্যে একটি ইমার্জেন্সি (জরুরি) মনোভাব ছিল। ব্যবসা কীভাবে টিকিয়ে রাখব ও কৃষি উৎপাদন কীভাবে বৃদ্ধি করা যায়, তা নিয়ে সবাই মনোযোগী ছিলেন। সবার এ মনোভাব ধরে রাখার চেষ্টা থাকতে হবে।

আহসান খান চৌধুরী, চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ

বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন