default-image

নারী-উদ্যোক্তাদের এগিয়ে যাওয়ার পথে ঋণের অপর্যাপ্ততা বড় বাধা বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী। স্বল্প মূলধনও তাঁদের উদ্যোক্তা হওয়ার পথে বড় সমস্যা বলে মনে করেন তিনি। গতকাল শনিবার অনলাইনে আয়োজিত দুই দিনব্যাপী এশীয় নারী-উদ্যোক্তা সামিট-২০২১-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া বিজনেস কাউন্সিল অব উইমেনস ও ইন্ডিয়ান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি যৌথভাবে এ সামিটের আয়োজন করেছে। ভার্চ্যুয়াল সামিটে বক্তব্য দেন ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাই আল-কাইলা। এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন মাসুদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর আতিউর রহমান, এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মফিজুর রহমান ও বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া বিজনেস কাউন্সিলের সভাপতি মানতাশা আহমেদ।

বিজ্ঞাপন

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, কোভিড-১৯-এর অভিঘাতে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। নারী-উদ্যোক্তাদের এ ক্ষতির পরিমাণ আরও বেশি। এ ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে নারী-উদ্যোক্তাদের জন্য পর্যাপ্ত ঋণ, প্রশিক্ষণ ও কারিগরি সহায়তা দেওয়ার ওপর জোর দেন তিনি।

নারী উদ্যোক্তাদের সিংহভাগই ক্ষুদ্র ও মাঝারি খাতের। মহামারি মোকাবিলায় এ খাতের জন্য প্রায় ৬০ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা তহবিল গঠন করা হয়েছে, যার প্রায় পুরোটাই ব্যাংকঋণনির্ভর। কিন্তু অনেক ব্যাংকই জামানত ছাড়া ঋণ দিতে চায় না। ফলে নারী উদ্যোক্তাদের মধ্যে বেশির ভাগই এ ঋণ পাননি।

এ পরিপ্রেক্ষিতে অনেকে বলেন, নারী উদ্যোক্তাদের প্রথম ১০ বছরের জন্য কর ও ভ্যাট ছাড় দেওয়া উচিত। পাশাপাশি তাঁদের জামানত ছাড়া স্বল্প সুদে ঋণ দেওয়ার কথাও বলেন তাঁরা।

উদ্যোক্তা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন