বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

শুধু কাজের সীমা নয়, চিন্তার সীমাকেও বাড়িয়ে নিতে হবে। নতুন উদ্যোগ বা ব্যবসায় নতুন এলে নিজের মধ্যেই অনেক দ্বিধা থাকে। এসব দ্বিধা দূর করে কিছু সাহসী পদক্ষেপ নিতে হবে। যেমন মূল্য ছাড় দিলে হয়তো লাভ কম থাকে। তবে এটা পরীক্ষিত যে মূল্যছাড়ে আয় কম হলেও ব্যবসার সফলতায় এটি প্রয়োজন।
যদি লক্ষ্যের সঙ্গে সীমার কোনো দ্বন্দ্ব না হয়, তবেই কেবল সামনে আগানো উচিত।

৩. সহায়তার মাত্রা নির্ধারণ

যদি ব্যবসা একটা যাত্রা হয়, বিনিয়োগ একটা বাহন। এই বাহন দিয়ে আমরা এক অবস্থান থেকে আরেক অবস্থানে পৌঁছাই। এখন সেই পর্যন্ত পৌঁছাতে আমরা কতটা সহযোগিতা পেতে পারি, তা-ও নির্ধারণ করতে হবে বিনিয়োগের আগে।
ধরুন আপনি একটি পণ্য কারওয়ান বাজার থেকে মিরপুরে নেবেন। এখন সেই পণ্যটা ভ্যানেও নিতে পারেন অথবা ট্রাকেও। জানতে হবে কতটা খরচ এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য আছে। অথবা বেশি খরচ করে দ্রুত কাজ করলে কোনো সুবিধা পাওয়া যায় কি না।

মোট কথা, বিনিয়োগ যদি সঠিক ফল দেয়, তবে সেই বিনিয়োগ করতে হবে।

উদ্যোক্তা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন