বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সভায় মুস্তফা কামাল স্বাস্থ্য খাতে নেতিবাচক প্রভাব উত্তরণে সরকারের ২ হাজার ২৮০ কোটি মার্কিন ডলার (জিডিপির ৬ দশমিক ২৩ শতাংশ) প্রণোদনা বাস্তবায়নের বিষয়টি এডিবিকে অবহিত করেন।

করোনা মহামারি কাটিয়ে উঠতে বাংলাদেশের সামাজিক ও অর্থনৈতিক নিরাপত্তা পুনরুদ্ধারে এডিবি বাংলাদেশের পাশে ছিল এবং ভবিষ্যতেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন এডিবির সহসভাপতি শিজিন চেন।

সভায় বক্তারা বলেন, করোনাকালে এডিবি বাংলাদেশকে বিভিন্ন ধাপে বিরূপ অর্থনৈতিক প্রভাব মোকাবিলা, টিকা ক্রয়, দ্রুত অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার, কর্মসৃজন ও অভিবাসী শ্রমিকদের দক্ষতা উন্নয়নে ২০০ কোটি ডলারের বেশি ঋণ ও অর্থসহায়তা দিয়েছে। দেশের উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে এটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন