কানাডার উদ্যোক্তাদের কাছ থেকে আরও বেশি বিনিয়োগ চায় বাংলাদেশ। এর পরিপ্রেক্ষিতে কানাডার উদ্যোক্তা ও কর্মকর্তারাও বলেছেন, বাংলাদেশ বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সম্ভাবনাময় দেশ।
রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে গতকাল শনিবার দুই দিনব্যাপী শোকেস কানাডা (কানাডার পণ্যের প্রদর্শনী) শুরু হয়েছে। ওই অনুষ্ঠান এবং প্রদর্শনীর একটি অধিবেশনে এটিই উঠে এসেছে। এই প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে কানাডা-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি।
প্রদর্শনীর উদ্বোধন করে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, বাংলাদেশ কানাডার উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগের জন্য নানা সুবিধা দিচ্ছে। এসব সুবিধা কাজে লাগিয়ে তাঁরা বিনিয়োগ বাড়াতে পারেন। তিনি চামড়া, ওষুধ, জাহাজ নির্মাণ এবং তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগের প্রস্তাব দেন।
কানাডার হাইকমিশনার বেনওয়া পিয়েরে লাঘামে বলেন, কানাডার সঙ্গে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর বাণিজ্যের দিক থেকে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়। গত বছর কানাডা-বাংলাদেশ দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যের পরিমাণ ১৯০ কোটি ডলার হলেও এবার তা ২০০ কোটি ডলার ছাড়িয়ে যাবে। কানাডার বাজারে তৈরি পোশাক, পাট ও পাটজাত পণ্য, সিরামিকসহ বিভিন্ন পণ্যের রপ্তানি বাড়ানোর সুযোগ রয়েছে বলে জানান তিনি।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহ্মদ, ডিসিসিআইয়ের সভাপতি হোসেন খালেদ প্রমুখ।
গতকাল শুরু হওয়া এই প্রদর্শনী আজ রোববার শেষ হবে। আয়োজকেরা জানান, এতে ৩৩টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন