*  ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারীরা নিশ্চয়ই গত কয়েক দিনে নিজ নিজ ব্যাংক থেকে একটি বার্তা পেয়েছেন। নিয়ন্ত্রক সংস্থার নির্দেশনার কথা জানিয়ে বলা হয়েছে, এখন থেকে আন্তর্জাতিক বিজ্ঞাপন সুবিধা নিলে ১৫ শতাংশ হারে মূল্য সংযোজন কর বা ভ্যাট দিতে হবে। অনেকেই ফেসবুক বা গুগলে বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকেন। তাঁদের এ জন্য এখন থেকে ১৫ শতাংশ হারে ভ্যাট দিতে হবে। বিজ্ঞাপনের অর্থ পরিশোধ করার সময় এই অর্থ কেটে নেওয়া হবে।

*  তবে খুশির খবর হচ্ছে, ক্রেডিট কার্ডে আন্তর্জাতিক লেনদেনে যে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছিল, তা থেকে সরে এসেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর ফলে কার্ডের আন্তর্জাতিক ব্যবহারের ক্ষেত্রে পৃথক হিসাব রাখার প্রয়োজন হবে না। তবে ‘অবৈধ লেনদেন’ বন্ধে ব্যাংকগুলোকে ব্যবস্থা নিতে হবে। যাতে অনলাইনে ক্যাসিনো, ফরেক্স ট্রেডিং, বিদেশি শেয়ারবাজারে লেনদেন, ক্রিপ্টো মুদ্রা, বিদেশি লটারি ও বাংলাদেশে উৎপাদিত পণ্য ক্রেডিট কার্ড দিয়ে না কেনা যায়।

*  সাধারণত একজন বাংলাদেশি ক্রেডিট কার্ডে সর্বোচ্চ ১০ লাখ টাকা ও ১২ হাজার ডলার পর্যন্ত ব্যবহারের সুযোগ পান। এর মধ্যে সার্কভুক্ত দেশে পাঁচ হাজার ডলার ও সার্কবহির্ভূত দেশে সাত হাজার ডলার। তবে কার্ডের মাধ্যমে অনলাইন কেনাকাটায় প্রতিটি লেনদেনের সীমা সর্বোচ্চ ৩০০ ডলার।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0