টানা অবরোধ-হরতালে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে এবারের কারুশিল্প মেলায় দর্শনার্থীর উপস্থিতি খুবই কম। ফলে মাসব্যাপী এই মেলায় দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে অংশ নেওয়া ২৫০ জন ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ী আর্থিকভাবে লোকসানের আশঙ্কায় আছেন।
বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন আয়োজিত মাসব্যাপী লোক কারুশিল্প মেলা ও লোকজ উৎসব গত ১৪ জানুয়ারি শুরু হয়। উৎসব ও মেলার উদ্বোধন করেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। মেলা শেষ হবে আগামী রোববার। তবে দেশে চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে উদ্বোধনী দিন থেকেই লোকসমাগম একেবারেই হয়নি।
মাসব্যাপী এই মেলায় প্রতিবছরের মতো এবারও দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে হস্তশিল্প, মৃৎশিল্প, শাড়ি, খাবারসহ নানা ধরনের পণ্য নিয়ে এসেছেন ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের ব্যবসায়ীরা।
মেলায় অংশ নেওয়া চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, ব্যবসায়ীদের মূলধনের ৫০ শতাংশ টাকাই তাঁরা পণ্য বিক্রি করে তুলতে পারেননি। আরেক ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন জানান, এখন পর্যন্ত মাত্র ১৬টি শাড়ি বিক্রি করেছেন। ফলে কর্মচারীদের বেতন ও দোকান ভাড়া দিয়ে তিন থেকে চার লাখ টাকা লোকসান হবে।
লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনের পরিচালক রবীন্দ্র গোপ বলেন, হরতাল-অবরোধের কারণেই এ বছর ব্যবসায়ীদের লোকসান হয়েছে। পর্যটন ব্যবসায় ধস নেমেছে।

বিজ্ঞাপন
বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন