default-image

সিলেটের জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লিমিটেডের গত অর্থবছরে (২০১৮-১৯) নিট আয় হয়েছে ১৩৭ কোটি টাকার ওপরে। প্রতিষ্ঠানটি গ্যাস বিক্রি করে আয় করে ২০১৪.৩৫ কোটি টাকা। অন্যান্য খাতে আয় করে ১৭৫.০৭ কোটি টাকা।

সিলেট নগরের একটি রেস্তোরাঁর সম্মেলনকক্ষে গত শনিবার রাতে অনুষ্ঠিত জালালাবাদ গ্যাসের ৩৩তম বার্ষিক সাধারণ সভায় এ তথ্য জানানো হয়। আজ সোমবার জালালাবাদ গ্যাসের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. খায়রুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন।

সভার বরাত দিয়ে জনসংযোগ দপ্তর জানায়, জালালাবাদ গ্যাসের ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরের নিরীক্ষিত হিসাব অনুমোদিত হয়। ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরে কোম্পানিটি ৩৭৯৫.০৬৫ মিলিয়ন ঘনমিটার গ্যাস বিক্রি করে ২০১৪.৩৫ কোটি টাকা এবং অন্যান্য আয় বাবদ ১৭৫.০৭ কোটি টাকাসহ মোট ২১৮৯.৪২ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করে। আলোচ্য অর্থ বছরে কোম্পানির ২১১.৭২ কোটি টাকা কর-পূর্ব মুনাফা ও কর দেওয়ার পর ১৩৭.৬২ কোটি টাকা নিট মুনাফা করে। এ ছাড়া, ডিএসএল, লভ্যাংশ, আয়কর, আমদানি শুল্ক ও ভ্যাট বাবদ রাষ্ট্রীয় কোষাগারে মোট ১২৫.৪৪ কোটি টাকা জমা দেওয়া হয়েছে। যা গত অর্থ বছরে ছিল ১১৮.৪২ কোটি টাকা।

বার্ষিক সাধারণ সভায় সভাপতিত্ব করেন কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) এ বি এম আবদুল ফাত্তাহ। সভায় জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম, পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান মো. রুহুল আমীন, কোম্পানির শেয়ারহোল্ডার, পরিচালক ও কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক উপস্থিত ছিলেন।

সভা উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, পেট্রোবাংলা, পেট্রোবাংলার অধীন কোম্পানি সমূহের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, সিলেটে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, আমন্ত্রিত স্থানীয় রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতা এবং জালালাবাদ গ্যাসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। বার্ষিক সাধারণ সভা শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা হয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন